• কনৌজ থেকে হর্ষবর্ধন এসেছিল কিছু আগে। বেলাভূমি ছুঁয়ে যাওয়া নোনতা ঢেউ এর ভিতর কুচি কুচি অনু ঢেউ।...

  • সারাদিন অদ্ভুত রহস্যের ব্যথায় পালিয়ে বেড়াই বহুদিন ধরে গোপনে গোপনে রক্ত আর স্বেদ...

  • মানচিত্র আঁকা পৃথিবীর বেলুন দেখেছি; উঠেছে, বসেছে, চিৎকার করেছে : পরিমাণগত!...

  • আলো আসছে চোখে আলো সুড়ঙ্গ ঘুম ভেঙে.....

  • একটা চায়ের কাপ বিস্কুটের কামড় মেগা সিরিয়াল...

  • তার ঈশ্বর দু-হাতে বৃষ্টি নামালে লঘু দিগন্তে শেষ হয়ে যেত প্রান্তর...

মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০১৮


বৃষ্টি ছড়ানো রাজপথ ছেড়ে
ক্রমশ আয়নায়, নিজেকে বড়ই কাছের মনে হয়
আজকাল অলস বিকেলে কিছু ট্রাম ছোটে মনের ট্রামলাইনে
                  
অধরা আলোর মত কিছু মানুষ,
ডেকেই চলেছে বিগত দুমাস যাবত
আয়না কখনও বলেনি, আমি মানুষ
তবুও ভাবতে ভালোবাসি
এই যেমন, কিছু পড়ে থাকা কাটা ঘুড়ি,
তোমার মতই মৃত যদিও এখন!
আত্মহত্যা করেছিল সেই ট্রামলাইনের ধারে,
আর আমি ভেবেছি, শিউলি ছড়ানো আছে বারোয়ারি তলায়
ক্রমশ বৃষ্টি ভেজা বিকেলগুলো দূর হতে হতে আয়নায় দেখি,
                      
লেগে আছে আমারই চোখেরজল
তবু স্বীকার করতে কষ্ট হয়,
চোখ আমার শুধুই আমার, আমার আর আমার
আজকাল এমন বিছিয়ে আছি ভাবনায়,
নিজেকে ভীষণই আপন মনে হয়
তুমি ডাক দিয়ে যাও বিগত দুটোমাস যাবত
আর আমি ভাবছি,...সেই চেনা চেনা ভবিষ্যৎ

ফ্লুরোসেন্ট আলো লেগে আছে ধুলোগাছটার প্রতিটা পাতায় শিরা উপশিরা দিয়ে বয়ে যাচ্ছে বৃষ্টির মত ধোঁয়া গাছটা রাস্তার আমরা এদের ফুল দেখি না যেমন বেশ্যাগলিতে ফোটা লালটুকটুকে ঠোঁট দেখিনি কখনও কোন মুখ, ছোট্ট তিল ছোঁয়া দুরন্ত চিবুক শুধু জানি দুটো নিটোল স্তনের ভাঁজে চকচক করে সুপটু জিভ, শরীরের অন্ধকার খোঁজে সঙ্গমসুখ যে সুখ নিয়ে বেড়াচ্ছি আদিম কাল থেকে যবে থেকে সৃষ্টি হয়েছি, আমিও মানুষ হতে শিখেছি স্বার্থ খুঁজেই সুখের খোঁজে বোঝা বেড়ে যায়, দুঃখের পুণ্যের লোভে হাত ভরে ওঠে পাপে আমিও অতি সাধারণ এক স্বার্থপর ফসল সুখ সুখ করে অসুখ বাঁধিয়ে ফেলি তারপর আসে মনঃচিকিৎসক ততদিনে মনটাও জগদ্দলের মত টুটি টিপে ধরে জিভ টেনে বের করে সূত্রইতিহাস কে কেন কখন গেছিল কতদূর, ঠিকানা কোথায় তার? আমি খুঁজতে খুঁজতে গাছটাকে খুঁজে পাই আমাকে থাকতে দেয় গাছফ্লুরোসেন্ট আলো বয়ে যায় আমার শরীর ধরে, ধুলো মাখা হাতে ধোঁয়াবন্দী করি রোজ বৃষ্টি ভেবে গাছটায় ফুল ধরে বেশ পাতা হাসে কচি কচি কিজানি কেন এতদিন চোখে ধরেনি কোনো জলজ্যান্ত কুঁড়ি? এখন আমিও হাসতে শিখেছি, এমন নির্মল বসন্ত দেখে



অলঙ্করণ-সঞ্জীব







0 comments:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

অনুসন্ধান

    কবিতা সংকলন ২০১৫

    কবিতা সংকলন ২০১৫

    যোগাযোগ

    ফেরারিতে আপনার অপ্রকাশিত কবিতা, গল্প পাঠাতে ই-মেল করুন ferarifacebook@gmail.com এ। লেখা যে কোনো ইউনিকোড এ লিখে ওয়ার্ড ফাইলটি পাঠান। লেখা মনোনীত হলে প্রকাশিত হবে ৭-১০ দিনের মধ্যে।

    লিখেছেন

    বিভাস রায় চৌধুরী, বিকাশ সরকার, রেহান কৌশিক, অভিমন্যু মাহাত,ঋজুরেখ চক্রবর্তী, অনিন্দ্য রায়, অনুপম মুখোপাধ্যায়, অয়ন বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌভিক বন্দ্যোপাধ্যায়, দেবায়ুধ চট্টোপাধ্যায়, বিদিশা সরকার, ইন্দিরা মুখোপাধ্যায়, ঈশিতা ভাদুড়ী, সুবীর বোস,দয়াময় পোদ্দার, প্রত্যুষ বন্দ্যোপাধ্যায়, শৈলেন সাহ, প্রনব বসু রায়, মাহমুদ টোকন, ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত, কিরীটী সেনগুপ্ত, চন্দনকৃষ্ণ পাল,তাপসকিরণ রায়, দন্ত্যন ইসলাম, শর্মিষ্ঠা ঘোষ, সেলিম উদ্দিন মণ্ডল, সোমনাথ প্রধান,নবকুমার পোদ্দার,পিনাকী ঘোষ, দেবাশিষ মুখোপাধ্যায়, কিশোর ঘোষ,জুবিন ঘোষ, পলাশ দে,রঙ্গীত মিত্র, উল্কা, স্রোতস্বনী চট্টোপাধ্যায়, পবিত্র আচার্য্য, অবিন সেন, শান্তনু দে,শাঁউলি দে, অমিত ত্রিবেদী, শূদ্রক উপাধ্যায়, সৈকত ঘোষ, বাপ্পাদিত্য মুখোপাধ্যায়, মাহদী হাসান, সুমন্ত চট্টোপাধ্যায়,অনির্বাণ ভট্টাচার্য, আকাশ গঙ্গোপাধ্যায়,সুদীপ চট্টোপাধ্যায়, সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় ও আরও অনেকে।

    ফেসবুক পাতা

    ফেরারি কথা

    ফেসবুক পত্রিকা দিয়ে ২০১৩ তে আমাদের যাত্রা শুরু। শ্রদ্ধেয় কবি প্রাবন্ধিক, সাহিত্যিক ও হাংরি জেনেরেশন এর অন্যতম শ্রী মলয় রায়চৌধুরি তাঁর অনলাইন বার্তায় পত্রিকার শুভ সূচনা করেন। তারপর ডিজি ম্যাগ,অবশেষে এই ব্লগজিন।২০১৫ কলকাতা বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে ফেরারির প্রথম মুদ্রিত কবিতা সংকলন। প্রতিষ্ঠিত লেখকদের ভিড়ে সম্ভাবনাময় লেখক লেখিকাদের তুলে ধরতে যেভাবে লিটিল ম্যাগাজিন কিম্বা বহুল প্রচলিত পত্রিকাগুলি হিমসিম খাচ্ছে তাতে বর্তমান তথ্যপ্রযুক্তি অনেকটাই আশা জুগিয়েছে ।মূলত নতুন লেখকদের একটা জায়গা দিতেই ফেরারির এই উদ্যোগ। তাদের উৎসাহ যোগাতে লিখবেন সাম্প্রতিক কালের প্রতিষ্ঠিত লেখক লেখিকাও। এভাবেই খুলে যাবে বাংলা সাহিত্য চর্চার এক নতুন দিগন্ত। প্রবীণ থেকে নবীনে বয়ে যাবে বাংলা সাহিত্যের ধারা। মননশীল পাঠকের সুচিন্তিত মতামত ও প্রতিষ্ঠিত লেখকের অনুপ্রেরণা নবীন লেখক লেখিকাকে সাহায্য করবে আগামী দিনের বাংলা সাহিত্যের ধারক ও বাহক হয়ে উঠতে।

    উপদেষ্টা মণ্ডলী - পিনাকী প্রসাদ চক্রবর্তী,
    অনুপম মুখোপাধ্যায়, অনিন্দ রায়।

    অলঙ্করণ- মৌমিতা ভট্টাচার্য, নচিকেতা মাহাত, চিন্ময় মুখোপাধ্যায়, শ্রীমহাদেব, সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

    সম্পাদক- সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়



    Back to Top